কবিতা- করোনায় করণীয় সবার সম্ভব না।

কবিতা- করোনায় করণীয় সবার সম্ভব না। প্রিয় পাঠক সবাইকে করোনায় করোনীয় ভাবনা নিয়ে শিক্ষা গ্রহণ করা একান্ত প্রয়োজন। কবিতাটা লেখার আগে আমি আপনাদের নিকট কৃতজ্ঞতা জানায়। Education Family আপনাদের পদ চারনায় ধন্য। আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ আমার এই সামান্য লেখাগুলো (কবিতা) পড়া ও শেয়ার করার জন্য।

সেই সঙ্গে আরো অনুরোধ করব আজকে আমার এই লেখা কবিতা পুরোপুরি পড়ার জন্য। কথা দিচ্ছি আপনার মুল্যবান সময় নষ্ট হবে না।

আজকে আমার লেখার শিরোনাম; “কবিতাঃ করোনায় করণীয় সবার সম্ভব না।”

আসলে এটা করোনায় করণীয় সবার সম্ভব না, শিরোনামে কবিতা হলেও এর পিছনে অন্য অনেক সত্য কথা লুকিয়ে আছে। যা পুরোপুরি না পড়লে বুঝতে পারবেন না।।

কবিতাঃ করোনায় করণীয় সবার সম্ভব না।

করোনায় মৃত্যু যে দিন হাজারের কোঠায় ঠেকবে তখন মানুষ ঢুকবে ঘরের ভিতর।  কিন্তু তত দিনে ঘরে, ঘরে করোনা করবে বিচরণ।

 বাইরে থেকে যেন ব্যক্তিতে না ছড়ায় করোনা সেই  জন্য এখন যুদ্ধ করছে বিভিন্ন সচেতন মহল ও প্রসাশন। কিন্তু হিমসিম খাচ্ছে সামলাতে  জনসাধারণ।

 এরকমভাবে হিমসিম খেতে হবে এক সময় প্রতিটি পরিবার প্রধান গণ। কেউ বা পাবে সেবা কেউবা মরবে সেবা পাওয়ার পরও যাকে বলা হবে বিধির লিখন।

 আর এদিকে কেউবা পাবে না সেবা বুঝবে না রোগের সমাধানকরণ। আপসে জীবনকে মৃত্যুর কাছে করবে নিবেদন/ সমার্পন।

সময়ের চাকা যদি এভাবেই চলে কিছু মাস ক্ষণ দেখবেন ঘরে ঘরে মরছে ঘন্টায় কয়েক হাজার জন।

বিধির কৃপা যদি না জোটে বাংগালীর উপর দেখবেন একদিন লাশের চাপায় বাতাসটা হয়ে ওঠবে গরম।

আমি বুঝেছি কি করতে হবে এখন। কিন্তু কতক্ষণ আমায় রাখবেন ঘরের ভিতর।

 পেট তো মানবে না মৃত্যু কার আপন কার পর। কতজনকে দিবেন মোবাইলে টাকা যখন  আপন সন্তানেরাই ক্ষুধায় কাতর।

আমার মত বেকার আছে লক্ষজন। সবাই তো নয় আমার সত ভাই কিংবা প্রশংসাকারী প্রভুভক্ত প্রাণীর মতন।

অপ্রতুল সম্পদে আমিও চাইলে হবে না সমবন্টন। তাই আগে বাচায় আমার কাছের, গভীর কাছের আছে যত রতন।

 হিসাব কষে ঢের দিয়েছেন ভেবে হয় মহা আলেক্ষণ। ভেবে দেখেনি তারচেয়েও বেশি আছে অভুক্ত বেকার দিনক্ষণ।

যার ঘর নাই, থাকবে সে কার ভিতর? বলছো তো জনাব ঘরে থাক, ঘরে থাক বাচাও   আপনজন।

 কথায় আছে,” টিক দেওয়ার আছে ভিক দেওয়ার নাই”। বক্তব্য দিয়ে সরে  দাড়ায়, আগে প্রাণ বাচায় আপন।

 কজনার ঘরে দিয়েছেন চাল কতজনকে দিয়েছেন সাবান। কতজনের আছে আলাদা ঘর, আলাদা বার্থরুম।

সবাই যখন বুঝবে এগুলো মিছে গাল গল্প, আসলে সত্য  অন্যরকম। দিন গুলি পার হবে ঠিকি, কিন্তু পাবেন না আত্মার আলিংগন।


মৃত্যুর মিছিল বাড়ছে দিনে দিনে। না জানি হয় আমার শিরোনাম সত্য লিখন।

 তাহলে  আমিও হয়তো সামিল তার ভিতর। ভিক্ষা চাই যদি হায়াত থাকে প্রভুর নিকট, দিওনা  মোদের করোনার মৃত্যুর খবর।

 নিওনা মোদের আয়ুর আগে করতে সৎ কাজ করে অতি যতন।

হবোনা নিরাশ হতে তোমার আশ, কারণ তুমি তো মহান রিজিক দাতা জন্ম ও মৃত্যুর কারণ।

অভাবের তাড়নায় হাত বাড়ায় অজান্তে মানুষের নিকট, কারণ আমাদের ঈমানটা অতি দুর্বল অল্পতে করি হীন আচারণ।

আমার শুভাকাক্ষীদের জানায় ঈদের অনেক সম্ভাষণ যারা না চাইতেই দিয়েছেন আমাকে অনেক উপঢোকন।

দোয়া করি সকলের তরে, ক্ষমা চাই পেতে রেহাই করোনার মত মৃত্যুর ছোবল। বিনয়ের সাথে বলছি হে খোদা মোদের দুআ করো কবুল।

কবিতাঃ করোনায় করণীয় সবার সম্ভব না।


লেখক ব্লগারঃ মোঃ মোস্তাফা দেওয়ান।

শিক্ষা বিষয়ক বিভিন্ন লেখা দেখতে ভিজিট করুন এই লিংক।

এই লেখার ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

আমাদের ফেসবুক পেজ দেখতে ক্লিক করুন এখানে।

আরো পোষ্ট দেখতে নিচের শিরোনাম গুলোতে টার্চ করুন।

১টি কলার দাম ২০০০ টাকা এবং ১ টি ডিমের দাম ১০০০ টাকা 

স্বাস্থ্য খাতে ব্যাপক দুর্নীতি চরম ও অবনতি 

Solving the sexual … of women and men.

যৌন আকর্ষণ-যৌনমোহ, ব্যাধি ও প্রতিকার।

কবিতাঃ করোনায় করণীয় সবার সম্ভব না।কবিতাঃ করোনায় করণীয় সবার সম্ভব না।

Spread the love