নিষিদ্ধ বইয়ের গল্প পড়তে ফ্রি ডাউনলোড করুন।

নিষিদ্ধ বইয়ের গল্প পড়তে ফ্রি ডাউনলোড করুন। । আমি যখন ডিগ্রী  ১ম বর্ষে পড়ি তখন কলেজ লাইব্রেরীতে একটা বই আমার চোখে পড়ে। বইটা আমি পড়তে চাইলে মামা বললেন, এতো বই  থাকতে এই বই পড়া লাগবে কেন?

আমি ঠিক বুঝতে পারলাম না। আসলে আমি জানতাম না যে কিছু বই আছে যা  বিভিন্ন কারণে নিষিদ্ধ। তখন থেকে আমার মাথার মধ্যে ঘুরপাক খাওয়া শুরু হলো । কেন বই গুলো নিষিদ্ধ হলো? কিছু দিন পড় মামাকে বুঝিয়ে বললাম , মামা আমরা বড় হয়েছি, ডিগ্রীতে পড়ি।

আমরা এখনো কি ছোট মানুষ আছি যে, কোন ভুল করবো? আমি কথা বলছি লাইব্রেরি পিয়নের সাথে। শেষে একটি বই দিয়ে বলল এই বইটা পড়তে পারো। আমার মনে আরো প্রশ্ন জাগলও । তার মানে আরো নিষিদ্ধ কিছু বই আছে নাকি? যা হোক ব ই টা পড়তে শুরু করলাম। ব ই যখন পড়তে শুরু করলাম কিছু প্রশ্ন দেখে অবাক হলাম ।

আমি মনে মনে ভাবলাম ইনি ঠিক প্রশ্ন করেছে। এক দিকে আমি নতুন কিছু জেনে খুশি হলাম অন্য দিকে এই নিষিদ্ধ বই গুলোর প্রতি আমার জানার আগ্রহ বেড়ে গেল। তাহলে প্রশ্ন হলো ব ইটি নিষিদ্ধ হলো কেন? বইটি নিষিদ্ধ  হওয়ার অনেক গুলো কারণের মধ্যে একটি কারণ হলো আপনার জ্ঞানের অভাবে এই বই পড়ার ফলে আপ নার ঈমান  নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

বইটির নাম কি আপনার জানতে ইচ্ছে হচ্ছে মনে হয়! বইটির নাম বলছি তার আগে আপনাদের নিকট ধাঁধাঁ তা হলো বইটির লেখক বাংলাদেশের, শুধু এটুকু বলছি ইনি একজন ফাইভ পাশ মানুষ। বলেন তো লোকটি কে? আপনারা এক টু ভাবেন ততক্ষ্ণ আমি নিচে কিছু লিখি।

নিষিদ্ধ জিনিসের প্রতি নাকি মানুষের সহজাত আকর্ষণ। বইয়ের ক্ষেত্রেও তাই।

কোনো বই নিষিদ্ধ বা সমালোচিত হলে তার চাহিদা রাতারাতি বেড়ে যায় কয়েক গুণ। বিক্রেতারাও এই সুযোগে চড়া দামে সেগুলো বিক্রি করেন। বিশ্বের ইতিহাসে ১৫৫৭ সালে প্রথম কোনো বই বাজেয়াপ্ত বা নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। সে সময় খ্রিষ্টান ক্যাথলিক মতের সঙ্গে অমিল থাকায় তৎকালীন পোপ বেশ কিছু বই নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছিলেন। এর মধ্যে অবশ্য কয়েকটি বিজ্ঞান বিষয়ক বইও ছিল।

এর পর থেকে বর্তমান কাল পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কয়েক শ বই নিষিদ্ধ হয়েছে বিভিন্ন কারণে। কোনোটা নিষিদ্ধ হয়েছে ধর্মীয় কারণে, কোনোটা রাজনৈতিক কিংবা কোনোটা ভায়োলেন্স বা অশ্লীলতার দায়ে। কিন্তু এমন কিছু বইও আছে, যেগুলো আসলে ওপরের কোনো কারণের মধ্যে পড়ে না।

তার পরও সেগুলো বিভিন্ন দেশে প্রকাশনা বা বিক্রি নিষিদ্ধ হয়েছে। নিচে সে রকম নিষিদ্ধ হওয়া কয়েকটি জনপ্রিয় বইয়ের কথা জানাচ্ছি। সেই সাথে বই গুলো আপনাদের ফ্রি পড়ার জন্য ব্যবস্থা করে দিচ্ছি।

(William Tyndale) অনুদিত বাইবেল

অশ্লীলতার কারণে প্রথম যে বইটি নিষিদ্ধ হয় সেটি ছিল খ্রস্টানদের পবিত্র বাইবেল। ইংল্যান্ড থেকে প্রকাশিত উইলিয়াম টেইন্ডাল (William Tyndale) অনুদিত বাইবেল নিষিদ্ধ হওয়ার কারণ ছিল অশ্লীলতা (বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ে আলোচনা)। তৎকালীন অষ্টম হেনরি নিজের জীবনের বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে বিস্তর ঝামেলায় পড়েছিলেন।

তিনি চেয়েছেন বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে কোথাও যেন আলোচনা না হয়। তাই পরিশেষে পুড়িয়ে ফেলা হয় অনুদিত বাইবেলের ছ’হাজার কপি। অনুদিত বাইবেলটি নিষিদ্ধ হওয়ার পর টেইন্ডাল প্রাণে বাঁচার জন্য দেশত্যাগ করতে হয়েছিল। কিন্তু মজার ব্যাপার হল বর্তমানে সেই অনুদিত বাইবেলটিই পুরো বিশ্বের মানুষ অনুস্মরণ করছে।  

William Tyndale: A Biography লিংক পেতে এখানে ক্লিক করন।

ইউলিসিস, জেমস জয়েস

সাহিত্যের ইতিহাসে আরেকটি অবাক করার মতো ঘটনা ঘটিয়েছিলেন জেমস জয়েস (James Joyce) তার বিখ্যাত ইউলিসিস (Ulysses) লিখে। তিনি ১৯০৪ সালে জুন মাসে মাত্র ১৮ ঘন্টার ঘটনা (সকাল ৮টা থেকে বিকাল ২টা) নিয়ে উপন্যাস লিখেছিলেন। উপন্যাসটি প্রকাশিত হওয়ার পর অশ্লীলতার অভিযোগে নিষিদ্ধ হয়ে যায়।

উপন্যাসটির ৪৯৯ কপি পুড়িয়ে ফেলা হয়। উপন্যাসটি এত তথ্যবহুল ছিল যে জয়েস বলেছিলেন “ডাবলিন শহর যদি কোনদিনে ধ্বংস হয়ে যায় তাহলে হুবহু শহরটি গড়ে তোলা যাবে তার এই ইউলিসিস থেকে।” বইটি কেবল উপন্যাস নয় জীবন্ত ইতিহাসও বটে। বর্তমানে উইলিসিস সেরা উপন্যাসগুলোর মধ্যে একটি।

বই টির ডাউনলোড লিংক

দ্য অ্যাডভেঞ্চার অব হাকলবেরিফিন, মার্ক টোয়েন

মার্ক টোয়েনের ‘দ্য অ্যাডভেঞ্চার অব হাকলবেরি ফিন’ ভাষার অজুহাত দেখিয়ে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। বইটি মূলত বর্ণান্ধতার কারণে মার্কিনিরা নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। ১৮৮৪ সালে প্রকাশিত এ বইয়ে শ্বেতকায় ছেলে এবং কৃষ্ণাঙ্গ মানুষের বন্ধুত্ব দেখানো হয়, যা শ্বেতঙ্গ শাসকেরা স্বাভাবিকভাবে নিতে পারেনি। বর্তমান বিশ্বে ‘দ্য অ্যাডভেঞ্চার অব হাকলবেরি ফিন’ বইটি সুপাঠ্য। বইটির ডাউনলোড লিংক

প্রজাপতি, সমরেশবসু

সমরেশ বসুর “প্রজাপতি” অশ্লীলতার অভিযোগে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল। এবং ১৮ বছর বন্ধ রইল এর প্রকাশ। লেখক বুদ্ধদেব বসু আদালতে সাক্ষ্য দিতে গিয়ে বলেছিলেন, ” যৌনতার কারণে ‘প্রজাপতি’ নিষিদ্ধ হলে বাইবেল মহাভারতেকেও নিষিদ্ধ করতে হয়।” পরে বইটির উপর থেকে সকল আইনি বাধা তুলে নেয় হয়।

সমরেশ বসু প্রখ্যাত ভারতীয় বাঙালি লেখক, ঔপন্যাসিক। কালকূট ও ভ্রমর তার ছদ্মনাম। তার রচনায় রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড, শ্রমজীবী মানুষের জীবন এবং যৌনতাসহ বিভিন্ন অভিজ্ঞতার সুনিপুণ বর্ণনা ফুটে ওঠে। সমএশ বসু ১৯২৪ সালে বাংলাদেশের বিক্রমপুরে জন্মগ্রহণ করেন।

কালকূট ও ভ্রমর তার ছদ্মনাম। কালকূট মানে তীব্র বিষ ‘অমৃত কুম্ভের সন্ধানে’, ‘কোথায় পাব তারে’ সহ অনেক উপন্যাস তিনি এ নামে লিখেছেন। ছদ্ম নামে লেখা শাম্ব উপন্যাসের জন্য তিনি ১৯৮০ সালের আকাদেমি পুরস্কার পেয়েছিলেন। ছোটদের জন্যে সৃষ্ট গোয়েন্দা গোগোল অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়।

গোগোলকে নিয়ে বহু ছোটগল্প ও উপন্যাস লিখেছেন যা শিশুসাহিত্য হিসেবে সমান জনপ্রিয়তা পেয়েছে। সমরেশ বসু ১৯৮৮-এর ১২ মার্চ মারা যান। মৃত্যুকালে ও তার লেখার টেবিলে ছিল ১০ বছরের অমানুষিক শ্রমের অসমাপ্ত ফসল শিল্পী রামকিংকর বেইজের জীবনী অবলম্বনে উপন্যাস দেখি নাই ফিরে। বইটির ডাউনলোড লিংক পেতে এখানে ক্লিক করুন।

ললিতা

 ভ্লাদিমির নাবোকভের লেখা একটি ইংরেজি উপন্যাস। প্রথমে লেখক ইংরেজি ভাষায় উপন্যাসটি রচনা করেন, ১৯৫৫ সালে প্যারিসে এবং ১৯৫৮ সালে নিউইয়র্কে উপন্যাসটি প্রকাশিত হয়। তারপর লেখক এটিকে রুশ ভাষায় আনুবাদ করেন। বিতর্কিত উপন্যাস হওয়ার কারণে বইটি আন্তর্জাতিক খ্যাতি লাভ করেছে।

ললিতা ছিল বিংশ শতাব্দী সাহিত্যের ইতিহাসে সবচেয়ে বিতর্কিত উপন্যাস। ১৯৬২ সালে স্ট্যানলি কুবরিক বইটি নিয়ে একটি চলচ্চিত্র তৈরী করেন। সিনেমাটি অসাধারণ একটি ক্লাসিক। পরে ১৯৯৭ সালে সিনেমাটির রিমেক হয় যাতে ডোমিনিক সোয়াইন এবং জেরেমি আয়রন্স অসামান্য অভিনয় করেন।

কাহিনী সংক্ষেপ

একজন বিবাহিত মধ্যবয়স্ক পুরুষের সাথে একটি ১২ বছর বয়সী বালিকার অসম ভালবাসার ঘটনা হল এই উপন্যাসটির মুখ্য উপাদান। ললিতার মূল চরিত্র ডলারেস হেইজ একটি কিশোরী মেয়ে। বাড়িতে পেয়িং গেস্ট হিসেবে থাকতে আসা প্রফেসর হামবার্টটের প্রতি আকৃষ্ট হয়। প্রফেসর একসময় মেয়েটির প্রেমে পড়েন।

ঘটনা বদলে যায় যখন ডলারেজের বিধবা মাও প্রফেসরের প্রেমে পড়ে এবং রীতিমতো বিয়ে করতে বাধ্য করে। একসময় প্রফেসরের তার মেয়ের প্রতি ভালবাসার কথা জানতে পেরে তিনি অত্যন্ত কষ্ট পান এবং কার এক্সিডেন্টে মারা যান। পরে প্রফেসর এবং ডলারেস হেইজকে নিয়ে কাহিনী আবর্তিত হয়।

ডলারেস একজন অত্যন্ত সুদর্শনা এবং আকর্ষণীয় কিশোরী। তবে সে প্রফেসরের প্রেমে পড়েছিলো তা বলা যায় না। কিন্তু প্রফেসর ডলারেসের প্রেমে পড়েছিলেন এবং ডলারেস প্রফেসরের শারীরিক সংগ ভালবাসত।কাহিনি শেষে একটি হৃদয়বিদারক দিকে মোড় নেয়। এটি অন্যতম সেরা ক্লাসিক প্রেমকাহিনী। ডাউনলোড লিংক এখানে  

উতল হাওয়া – তসলিমা নাসরিন

তসলিমা নাসরিন এর উতল হাওয়া বাংলা বইটি সম্পুর্ণ ফ্রীতে ডাউনলোড এবং পড়তে পারবেন। আমরা তসলিমা নাসরিনের উতল হাওয়া বই এর পিডিএফ কপি সংগ্রহ করেছি এবং আপনাদের মাঝে তা শেয়ার করছি। তসলিমা নাসরিন এর অন্যান্য গল্প, উপন্যাস, কাব্যগ্রন্থ, কবিতার বই সমূহ পড়তে আমাদের সাইটে চোখ রখুন।

তসলিমা নাসরিনের জীবনভিত্তিক প্রথম চলচ্চিত্র নির্বাসিত ২০১৪ সালে মুম্বাই চলচ্চিত্র উৎসবে মুক্তি পায়। তসলিমা নাসরিনের নির্বাচিত কলাম নামক তাঁর বিখ্যাত প্রবন্ধসঙ্কলনের জন্য তিনি ১৯৯২ সালে আনন্দ পুরস্কার লাভ করেন । এছাড়া অতলে অন্তরীণ, বালিকার গোল্লাছুট ও বেহুলা একা ভাসিয়েছিল ভেলা নামক তিনটি কাব্যগ্রন্থ; যাবো না কেন?

যাব ও নষ্ট মেয়ের নষ্ট গল্প নামক দুইটি প্রবন্ধসঙ্কলন এবং অপরপক্ষ, শোধ, নিমন্ত্রণ ও ফেরা নামক চারটি উপন্যাস প্রকাশিত হয়। নিচের লিংক থেকে ০২ এমবির বইটি ডাউনলোড করে কিংবা অনলাইনে যেকোন সময় তসলিমা নাসরিন এর এই জনপ্রিয় আত্মজীবনী বইটি পড়ে নিতে পারবেন। ডাউনলোড লিংক

প্রিয় বন্ধুগ্ণ আমি উপরে একটি ধাধা দিয়েছিলাম। তার উত্তর কি পেয়েছেন? জানা থাকলে কমেন্টে জানাবেন । আর জানা না থাকলে ক্লিক করুন লিংকে। নিচে তার নাম সামান্য ধারণা দেওয়া হলো।

আরজ আলী মাতুব্বর

আরজ আলী মাতুব্বর রচনা সমগ্র ০১ প্রথাবিরোধী ধর্মদর্শনের প্রাচীন ধারাবাহিকতার বাংলাদেশী রূপকার হলেন আরজ আলি মাতুব্বর। তিনি মনে করতেন পশু যেমন সামান্য জ্ঞান নিয়েই সন্তুষ্ট থাকে ধর্মবাদী ব্যক্তিগণও তেমনি সামান্য জ্ঞান নিয়েই জীবন কাটিয়ে দেয়।

মেধার বিকাশ, মুক্তচিন্তা, মুক্তজ্ঞান, বিজ্ঞান চেতনা ইত্যাদি মুক্তবৌদ্ধিক মনোভঙ্গির বিপক্ষে ধর্মপ্রবণ ব্যক্তিগণ দৃঢ় অবস্থান গ্রহণ করে। তাই ধর্ম অনেকাংশেই মানুষের মানবিক বিকাশকে সমর্থন করে না; মুক্তবুদ্ধি, জ্ঞানচর্চা, উদারতা, সহানুভূতিশীলতা, মানবিকতা প্রভৃতির প্রসার-প্রচারকে অনেকাংশেই সীমিত করে তোলে।

তিনি জানেন সমাজের যথার্থ মুক্তি ঘটে একমাত্র বস্তুবাদী দর্শনের চর্চাতেই। নিজের প্রান্তিক জীবনের সাধারণ কয়েকটি ঘটনাতেই তিনি বুঝে নিয়েছেন তার ও তার সমাজের আচরিত ধর্মের স্বরূপ। ক্রমাগত গ্রন্থ পাঠে বুঝে নিয়েছেন এর কারণাবলী। এই অন্ধকারাচ্ছন্নতার বিরুদ্ধে তার অবস্থান ছিল সুস্পষ্ট। তাই তিনি অনবরত প্রশ্নবাণে দগ্ধ করেছেন তথাকথিত সমাজপিতা ও তাদের আচরিত-প্রচারিত ধর্ম ও দর্শনকে।

একজন কৃষকের দার্শনিক হয়ে ওঠার অবিশ্বাস্য তথ্য জানতে এখানে ক্লিক করুন।

আপনারা ইচ্ছা করলে যে কোন বই গুগল থেকে খোঁজে নিতে পারন আপনার সুবিধা মত।

শিক্ষা বিষয়ক বিভিন্ন লেখা দেখতে চলে আসুন এখানে।

মান্না দে সাহেবের পরিচয় ও জনপ্রিয় গান সমূহ। নিষিদ্ধ বইয়ের গল্প পড়তে ফ্রি ডাউনলোড করুন।

নিষিদ্ধ বইয়ের গল্প পড়তে ফ্রি ডাউনলোড করুন। নিষিদ্ধ বইয়ের গল্প পড়তে ফ্রি ডাউনলোড করুন। নিষিদ্ধ বইয়ের গল্প পড়তে ফ্রি ডাউনলোড করুন। নিষিদ্ধ বইয়ের গল্প পড়তে ফ্রি ডাউনলোড করুন। নিষিদ্ধ বইয়ের গল্প পড়তে ফ্রি ডাউনলোড করুন। নিষিদ্ধ বইয়ের গল্প পড়তে ফ্রি ডাউনলোড করুন।