নীড়পাতা – আপনার সন্তানকে দিনে এক ঘন্টা হলেও নিজে পড়ান।

নীড়পাতা-আপনার সন্তানকে দিনে এক ঘন্টা হলেও নিজে পড়ান। একজন ছাত্র বা একজন সন্তানের কত রকমের সমস্যা হয় তা নিজের জীবন দিয়ে কিছুটা উপলদ্ধি করা যায়। কিন্তু কিছু সমস্যা আমার জীবনের সাথে নাও মিশতে পারে। আর সন্তানের সমস্যার সমাধান একজন পিতা- বা মাতা বা অভিভাবক যত সহজে করতে পারবে তা অন্য কারো পক্ষে এতো দ্রুত সম্ভব নয়। একজন বাবা-মা তার সন্তানকে যত কাছে থেকে নিবীর দেখতে পারবে তা একজন শিক্ষকের পক্ষে সম্ভব নয়। শিক্ষক সেইভাবে দেখতে গেলে পক্ষপাত সৃষ্টি হতে পারে। কিন্তু বাবা মার কাছে সব সন্তান সমান। আমি বলছি না যে শিক্ষকেরা পক্ষপাত করেন। তবে এটা বলতে পারবেন না যে আমার ত্রুটি হতে পারে না।

তাই বলছিলাম “আপনার সন্তানকে দিনে এক ঘন্টা হলেও নিজে পড়ান।” যখন আপনে নিজে পড়াবেন তখন আপনার টনক নড়বে। আপনে তখন হয় অবাক হবেন খুব ভাল ভেবে না হয় খুব খারাপ ভেবে। ভাল হলে তার স্বার্থকতা আপনে হাতে নাতে পাবেন। আর খারাপ হলে ভাবার সময় পাবেন যে, কি করে ভাল করা যায়। (নীড়পাতা)

এটা তো গেল লেখা্ পড়ার বিষয়। এছাড়া অসুখ গোপন ও কঠিন সমস্যা যা একজন মানুষের পক্ষে সব সময় সব জায়গায় বলা সম্ভব হয় না। এই সমস্যাগুলো বাবা-মা পাশে থাকলে বিশেষ করে নিয়মিত লেখাপড়ার কাজে বাস্ত থাকলে অতি দ্রুত ধরতে পারবেন।এবং তাড়াতাড়ি তার সমাধানের পথ খোঁজে বের করবেন। কিন্তু একঘন্টা তো দুরে থাক এমন বাবা মা আছে যিনিরা বছরেও সন্তানের ভালমন্দ অনেক বিষয়ে খোঁজ নেয় না।

আমার স্লোগান হল “ আপনার সন্তানকে দিনে এক ঘন্টা হলেও নিজে পড়ান।”

আপনার সন্তানকে নিজে পড়ালে উপরের সমস্যার মত হাজারো সমস্যা করা সম্ভব অতি দ্রুত এবং কার্যকর্ । (নীড়পাতা)

আমাদের সাইট টি মুলত শিক্ষা বিষয়ক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লেখা। যা ছাত্র, শিক্ষক,অভিভাবক এবং সকল শ্রেণী পেশার মানুষের উপকারে আসবে।

এখানে যেমন সিলেবাসের বিষয় যেমন অর্ন্তভুক্ত থাকবে যা ছাত্রছাত্রীদের উপকারে আসবে। আবার এখানে কিছু অভিভাবকের ভুমিকা সংক্রান্ত বিষয়ে লেখা থাকবে যা সকলের জন্য প্রযোজ্য।সকলের জন্য প্রযোজ্য বলতে যার সন্তান আছে সে এবং যার সন্তান নাই কিন্তু অভিভাবকের ভুমিকা পালন করেন। একটি পরিবার, সমাজ, পরিচালনা করে তাকেও বুঝানো হয়েছে।

কথায় নয় কাজে পরিচয়। ভুলত্রুটি মার্জনীয়। দয়া করে এই শিক্ষা পরিবারে প্রয়োজনীয় সহোযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিবেন যাতে আমাদের চেষ্টা সফল করতে পারি। আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

মোবাইল: ০১৭৩৬২৬৫৬৯

আমাদের ফেসবুক পেজ দেখতে এবং প্রয়োজনীয় সাহায্য প্রদান করতে