পুণ্যবান ব্যক্তির সাক্ষাত লাভও সু-ভাগ্যের বিষয়।

পুণ্যবান ব্যক্তির সাক্ষাত লাভও সু-ভাগ্যের বিষয়।(পুণ্যবান)
ভাল মানুষের পাশে থাকলে ভাল হওয়া যায়, একথাটি চিরসত্য।আমি কিছু উদাহারণের মাধ্যমে আপনাদের নিকট বিষয়টি আরো পরিস্কার করতে চাই।
নবী রাসুল গণের পাশে থেকে সাহাবীরা নবীর গুণে গুণান্বিত হয়ে সারাটি জীবন অতিবাহিত করেছেন।কোন রকম লোভলালসা তাদেরকে নষ্ট করতে পারেনি।জীবনের কঠিনতম অবস্থা পর্যন্ত তারা নবী রাসুলের আর্দশ অনুস্বরণ করেছেন।নবী রাসুল গণের সুদৃষ্টির কারণেই তারা বেহেস্তী সার্টিফিকেট অর্জন করেছেন।(পুণ্যবান)
ডাক্তারি লেখাপড়া শিখে তাকে আবার ইর্ন্টানি করতে হয় ভাল ডাক্তারের কাছে। ভাল ডাক্তারের কাছে ইর্ন্টানি না করলে ভাল ডাক্তার হওয়া যায় না।তাই ডাক্তারি ভাল হতে হলে ভাল ডাক্তার এর নিকট হাতে কলমে শিখতে হয়।তবেই ভাল ডাক্তার হওয়া সম্ভব। এপ্রসঙ্গে আমি একটা হাদীস থেহে জানাতে চাই।নিচে হাদীসের আলোকে একটি উদাহারণ তুলে ধরলাম।(পুণ্যবান)
আদম (রহঃ) আবূ তালহা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, নাবী (সাঃ) বলেছেনঃ ফিরিশতা ঐ ঘরে প্রবেশ করে না, যে ঘরে কুকুর থাকে এবং ঐ ঘরেও না, যে ঘরে ছবি থাকে।
লায়স (রহঃ) আবূ তালহা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, নাবী (সাঃ) থেকে (এ বিষয়ে) শুনেছি। সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ পোষাক-পরিচ্ছদ হাদিস নাম্বারঃ ৫৫২৫
ইয়াহইয়া ইবন সুলাইমান (রহঃ) সালিম (রাঃ) তাঁর পিতার নিকট হতে বর্ণনা করেন, তিনি বলেন, জিবরাঈল আলাইহি ওয়া সাল্লাম নাবী (সাঃ) -কে (সাক্ষাতে) ওয়াদা দিয়েছিলেন। (কিন্তু তিনি সময় মত আসেন নি। নাবী (সাঃ) -এর কারণ জিজ্ঞাসা করলেন, তিনি বললেন, আমরা ঐ ঘরে প্রবেশ করি না, যে ঘরে ছবি এবং কুকুর থাকে। (পুণ্যবান)
সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ সৃষ্টির সূচনা হাদিস নাম্বারঃ ৩০০০

উপরের হাদীসগুলো আপনারা দেখলেন।আপনারা জানেন আসহাবে কাহাফের কাহিনী।
জনাকয়েক পলাতক যুবক, একটি গুহা আর তিন শতাব্দীর নিদ্রা- আসহাবে কাহাফের কাহিনী কেবল মুসলিমদের কাছেই প্রবল জনপ্রিয় একটি ঘটনা নয়, বরং খ্রিস্টানদের কাছেও ছিল খুব জনপ্রিয় ও অলৌকিক ঘটনা। কুরআনে বর্ণিত এই কাহিনীর সাথে সাথে সেই সিরিয়ান উপাখ্যান এবং যে নগরীতে এই ঘটনা ঘটেছিল- সবই আমরা এ লেখায় আলোচনা করার সুযোগ পাবো না। তবে এটুকু বুঝাতে চাই যে, অত্যাচারি রাজার হাত থেকে বাচাঁর জন্য যখন সাত যুবক পালিয়ে যাচ্ছিলেন তখন তাদের সঙ্গি হয়েছিলেন এক কুকুর। ক্লান্ত হয়ে তারা আশ্রয় নিয়েছিল এক গুহায়।সেখানে তারা ঘুমিয়ে ছিল ৩০৯ বছর।সঙ্গে ছিল ঐ কুকুর।আমি শুনেছি ঐ সাত যুবকের সঙ্গে নাকি ঐ কুকুরও জান্নাতে যাবেন।আপনারা উপরের হাদীস দুটি পড়েছেন। এর পরও শুধু ভাল মানুষের পাশে থাকার জন্য কুকুরটি এই ক্ষমতা অর্জন করতে পেরেছেন।
যদি একটি কুকুর সৎ মানুষের পাশে থাকার জন্য ৩০৯ বছর ঘুমাতে পারে তাহলে কেন আমরা ভাল মানুষের পাশে থাকলে ভাল হব না?অবশ্যই আমরা এ ঘটনা থেকে অনেক গুলো শিক্ষার মধ্যে এ শিক্ষাটি কাজে লাগাবো।

কোন এক গল্পে শুনেছি জৈনিক কোন এক ব্যক্তি একটি ফুল গাছের নিচে বসে আছে। হঠাৎ গাছের নিচের কাঁদা কোন কারণে তার গায়ে ছিটকে পড়ে।তার চোখমুখ ভরে যায়।এখন ঐ ব্যক্তি চিন্তা করে যে, কাঁদা থেকে সুগন্ধি বের হয় কেন? এখন প্রশ্ন করলো কাঁদা তোমার কাছ থেকে সুগন্ধি বের হয় কেন। সাথে সাথে কাঁদার জবান খুলে গেল। কাঁদা বলছে, সুগন্ধ কি আমার? সুগন্ধটা ঐ ফুলের যে গাছটির নিচে আমি আছি।
তাহলে বুঝা গেল যে, ফুলের গন্ধে মাটিও সুগন্ধ হয়ে যায়। এরকম হাজারো উদাহারণ দেওয়া যাবে। সুতারাং আমরা খুব সহজে অনুমান করতে পারি যে, যা কিছু ভাল তার পাশে থাকলে তার সেই ভাল গুণটা অর্জন করা যায়।
তাই আমরা ভাল মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করবো, ভাল কিছু শিখবো, দুনিয়াতে ভাল কিছু উপহার দিবো।ভাল মানুষের গুণে গুণান্বিত হয়ে জীবনকে ধন্য করবো ইনশাল্লাহ।
শিক্ষাবিষয়ক বিভিন্ন লেখা দেখতে এখানে ক্লিক করুন।
যেকোন প্রশ্ন করতে ও জানাতে এখানে ক্লিক করুন।
আমাদের ফেসবুক পেজ দেখতে এখানে ক্লিক করুন

One thought on “পুণ্যবান ব্যক্তির সাক্ষাত লাভও সু-ভাগ্যের বিষয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.