প্রতিটি জমির মালিকের ভূমির পরিমাপ ও ফরায়েজ সম্পর্কে জানা আবশ্যক।

সুধী পাঠক আজকে আমি একটি বিষয় নিয়ে লিখছি যা প্রত্যেকটি মানুষের জানা দরকার।
কি গরিব কি ধনী কি শিক্ষিত কি মুর্খ প্রত্যেকটি মানুষের এই বিষয়ে জানা উচিত।এক কথায় যার এক কাঠা সম্পত্তি আছে, যার মাথা্ গোজার ঠাঁই আছে তারও এগুলো জানা দরকার। আর তা হল নিজের সম্পদ ও সম্পত্তি সম্পর্কে।প্রথমে জানা যাক সম্পদ কি?

সম্পদ: সম্পত্ত বা সম্পত্তি বলতে যার উপর মানুষের অধিকার আছে, মালিকানা আছে, যা হতে মুনাফা বা উপস্বত্ব অর্জন করে, যা ভোগ-ব্যবহার করে এবং যা হস্তান্তরের অধিকারী হয়, তাকে সম্পত্তি বলে ।

সম্পত্তি দুই প্রকার। যথা:-
১। স্থাবর সম্পত্তি এবং ২। অস্থাবর সম্পত্তি।
এখানে আমাদের আলোচ্য বিষয় স্থাবর সম্পত্তি অর্থাৎ ভূমি।
ভুমি কী?
ভূমি: স্টেট ইকুইজিশন এণ্ড টেন্যান্স এ্যাক্ট ১৯৫০ এর ২ধারা (১৬) দফা (Clause) এ ভূমি বলতে বুঝায়, সে ভূমি আবাদি, অনাবাদি, অথবা বৎসরের যে কোন সময় পানি দ্বারা নিমজ্জিত থাকে এবং (ভূমি হতে উৎপন্ন সুবিধাদিসহ) বাড়ি ঘর, দালান-কোঠা, ভূমির সাথে সংযুক্ত বস্তুসমূহ বা ভূমির সাথে সংযুক্ত কোন বস্তুর সাথে স্থায়ীভাবে আবদ্ধ। রয়েছে এমন বস্তু বা বস্তুসমূহকে ভূমির অন্তর্ভুক্ত বা ভূমি হিসেবে গণ্য হবে। কেন প্রয়োজন ভূমির পরিমাপ শেখা: যারই এক খন্ড জমি আছে তারই ভূমির পরিমাপ শেখার প্রয়োজন আছে। কেন আপনি আপনার জমির কাগজিক অবস্থান বা নকশা জানবেন না? কেন আপনি কোন দাগে কত জমি তা বুঝবেন না। যখন জমি ক্রয় বিক্রয় করবেন- তখন তো আপনি এ অজ্ঞতার জন্য সুনিশ্চিত ঠকবেন! আর যার সুযোগ নেবে শহর/গ্রামের এক টাউট বা প্রতারক শ্ৰেণী। তা ছাড়া মুসলিম ফরায়েজ প্রতিটি মুসলমানের শিক্ষা করা আবশ্যক। এ প্রসঙ্গে আল্লাহর নবী (স) বলেন, “তোমরা ফরায়েজ শিক্ষা গ্রহণ কর এবং তা মানুষদের শিক্ষাদান কর, কেননা ইহা জ্ঞানের অর্ধেক।’ রাসূলে করীম (স) আরো বলেন, ফরায়েজ হলো দ্বীনের এক তৃতীয়াংশ এবং ইহা প্রথম জ্ঞান যা উঠিয়ে নেয়া হবে।’ সুতরাং প্রতিটি জমির মালিকের ভূমির পরিমাপ ও ফরায়েজ সম্পর্কে পরিপূর্ণ এবং স্বচ্ছ ধারণা থাকা উচিত। জমির মাপজোখ কী কঠিন কাজ? মোটেই না। একটু লক্ষ্য করলেই দেখবেন গ্রামের স্বল্পশিক্ষিত কিছু মানুষ কী সুন্দর ভাবে জমির নকশা দেখে কোন দাগে কত জমি তা বলে দিচ্ছে। কীভাবে তারা তা পারে। আর কেনই বা আপনি পারেন না। খুবই সহজ। তাদের জমির পরিমাপ সম্পর্কে বেসিক ধারণা আছে। এখন প্রয়োজন আপনার একটু সময় ও একনিষ্ঠতা। দেখবেন বিষয়ে পড়া শেষ হওয়া মাত্রই আপনি একজন দক্ষ আমিন হয়ে গেছেন।
আমিন কাকে বলে?
আমিন আমিন আরবি শব্দ। এর অর্থ বিশ্বাসী বা সত্য রক্ষক। প্রচলিত ভাষায় যে ব্যক্তি বিশ্বস্ততার সাথে শুদ্ধ ভাবে জায়গা জমি পরিমাপ, ভাগ বণ্টন ও সীমানা নির্ধারণ করে তাকে আমিন বলে ।
লেখা গুলো খুবি ভাল এবং সবার জানা দরকার। আমার পড়ে ভাল লাগল তাই আপনাদের জন্য শেয়ার করলাম।এই বিষয়ে বিস্তারিত পাবেন যে কোন একটি জমি পরিমাপ সংক্রান্ত বইয়ে। তার মধ্যে আপনে “ জমি বা ভূমির পূর্ণাঙ্গ মাপজোখ ও ভাগবন্টন” নামক বইয়ে ও পাবেন।
পরিবেশক
জ্ঞানের আলো
৩৭, বিশাল বুক কমপ্লেক্স, বাংলাবাজার ঢাকা- ১০০০
মোবাইলঃ ০১৯১১৫৮৭৫৯১

9 thoughts on “প্রতিটি জমির মালিকের ভূমির পরিমাপ ও ফরায়েজ সম্পর্কে জানা আবশ্যক।

  1. Good day! I know this is somewhat off topic but I was wondering
    which blog platform are you using for this website?
    I’m getting sick and tired of WordPress because I’ve
    had issues with hackers and I’m looking at alternatives for another platform.

    I would be great if you could point me in the direction of a good platform.

Comments are closed.