ভিডিও দেখে অনলাইনে ব্যবসার নামে

ভিডিও দেখে অনলাইনে ব্যবসার নামে কেউ প্রতারিত হবেন না। প্রিয় পাঠক আজকাল অনলাইনে অনেক মন জুটানো বাহারি কথা বলে মানুষ কে আকৃষ্ট করে কিভাবে ঠকানো হচ্ছে। আমি তারি একটা বাস্তব গল্প বলছি। গল্পটি মনোযোগ সহকারে পড়লে আপনে অনেক বাস্তব জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন। পাশা পাশি অনলাইনে ব্যবসা করতে হলে কি কি বিষয়ে জানা দরকার সে সমন্ধে বুঝতে পারবেন।

আশা করি পোষ্টি পড়লে আপনার সময় বাঝে নষ্ট হবে না কথা দিলাম। তাছাড়া সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের অবহেলার ও অব্যবস্থাপনার কিছু বাস্তব উদাহারণ আপনাদের সামনে তুলে ধরবো।


প্রথমে বলে রাখি আমি এক জন ব্লগার।শখের বসে ব্লগিং করে থাকি। আমি অনেক আগে থেকে এই অনলাইন জগতে আছি  এবং দিনের বেশির ভাগ সময় অনলাইনে থাকি। বহু দিন ধরে অনলাইনে থাকলেও আমি কোন টাকা রোজগারের সুযোগ পায়নি। দিন দিন জীবনের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় আমি টাকা ইনকামের ধান্দা খুজতে থাকি। করোনা কালীন কোন ব্যবসা করলে ভাল হয়। বিশেষ করে অল্প পুজিতে বেশি লাভবান ব্যবসা কোনটি তা খোজতে থাকি।

 সেজন্য আমি বিভিন্ন ভিডিও দেখতে থাকি। এক এক টা ভিডিও দেখলে মনে হয় এই ব্যবসাটাই ভাল। আবার একটু ভেবে চিন্তা করে দুই তিন দিন সময় নিলে দেখা যায়,  না এই ব্যবসার চাইতে এই ব্যবসা ভাল। এভাবে ভাবতে ভাবতে বা ভিডিও দেখে দেখে এক সময় সিন্ধান্ত নিয়ে ফেললাম যে আমি কসমেটিক এর ব্যবসা করবো। কারণ এই ধরনের একটা ভিডিও দেখে ছিলাম। ভিডিওর টি লিংক এখানে।

 আবার কিছু খেলনার ভিডিও দেখলাম। তা দেখে ভাল লাগলো এবং কিছু খেলনা কিনার জন্য মনস্থির করলাম। যে দোকানদার এর নাম্বার দেওয়া ছিল তাদের নাম্বারে জোগাজোগ করলাম। তারা আমাকে   IMO তে ছবি পাঠিয়ে চয়েস করতে বললেন। আমি আমার চয়েস মত কিছু মালের অর্ডার করলাম। তারা মালের অর্ডার লিখে আমার ইমোতে লিষ্ট পাঠালো।

আমি বললাম মাল সুন্দরবন কিংবা এস এ কুরিয়ারযোগে পাঠিয়ে দিন। আমি টাকা দিয়ে মাল তুলে নিবো। কিন্তু তারা রাজি  হলো না। বাধ্য হয়ে মালের দাম অগ্রিম সব দিয়ে দিলাম। একটা কথা বলতে ভুলে গেছি আমি মালের লিষ্ট ও মুল্য দেখে বললাম যে কিছু দাম  কম করেন  দয়া করে। তারা বলল আপনে টাকা পাঠান আমরা টাকা দিয়ে কুরিয়ার করে দিবো। আমি দুজনের সাথে কথা বলেছি, দুজনে এক ই কথা বলেন।

 কিন্তু সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিস গিয়ে দেখি কোন টাকা তারা দেয়নি। আমি বললাম টাকা তো তাদের দেওয়ার কথা। সুন্দরবন কুরিয়ার এর কর্মরত লোকেরা বলে আমাদের কাছে তারা টাকা দেয়নি। আপনে টাকা দিয়ে মাল তুলে নিয়ে জান। বাধ্য হয়ে আমি তাদের নিদিষ্ট সার্ভিস চার্জ দিয়ে মাল তুলে নিলাম। আরো শুনেন তারা ( ঢাকার দোকানদার)  ১/২ কেজি একটা কার্টুন প্যাক করে ১০০ টাকা কেটে নেন। তাহলে আমাকে তারা কত ভাবে ঠকালো বুঝেন।
 দাম তো কম নিলো না।  কুরিয়ার সার্ভিসের টাকা দিল না। আমার দুটি প্যাক ছিল এর মধ্যে একটি প্যাকের গা খোলা।

আমি বললাম আপনারা এই কাটা প্যাকেট দিচ্ছেন কেন? ( সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিস )   তারা বললেন আমাদের যেভাবে দিয়েছে আমরা সেভাবেই দিয়েছি।আমি এবার বললাম  আপনারা এ ধরনের সার্ভিস কিভাবে দান যে একজন খোলা বা কাটা প্যাকেট দিল আর আপনারা তা নিয়ে নিলেন। আমি তো সবগুলো মাল এখানে পাবো না।

আপনারা কি আমার মাল কম পড়লে আমাকে দিতে পারবেন? আপনার যা মাল আছে এই কার্টুনের মধ্যেই আছে,  তারা উত্তর দেয়। আমি বললাম যেহেতু প্যাকেট টি ছিড়া বা কাটা সেহেতু এখানে মাল ঠিক নাই। আমি তখন ঢাকায় ফোন দিলাম। তারা বলল আমরা ভাল করে প্যাকেট বেধে দিয়েছি।

 আমি অনেক ভেবে দেখলাম আমি যদি মাল গুলি ফেরত দিই তাহলে আমার সব হারাতে হবে। কারণ আমি আগে টাকা দিয়ে দিয়েছি। তাই অনেক মন ভরা কষ্টে নিয়ে মাল গুলো দোকানে নিয়ে এসে মিলিয়ে দেখি তিনটি মাল কম। তাদেরকে জানিয়েছি কিন্তু কোন প্রতিকার পাইনি।

দোকানদার দুটির নাম ও ঠিকানাঃ

মজিবুল ষ্টোর প্রোঃ মোঃ মজিবুল হক, চকবাজার ঢাকা। ০১৭১৪৩০১৫১৬

Children’s Toy wholesale Market dhaka | স্বল্প পুঁজিতে ব্যবসার আইডিয়া ব্যবসা করে বেকারত্ব দুর করুন । ভিডিও ।

মেসার্স নুরানী এন্টারপাইজ

চকবাজার ঢাকা ০১৭১২৯৮৪৫৫৬

কসমেটিক্স অনলাইন পাইকারি মর্কেট চকবাজার ঢাকা | cosmetics wholesale in bd online | business ideas ভিডিও ।

 তাই বলছিলাম আপনারা অনলাইনে  যে কোন মাল না বুঝে কিনবেন না। আমি যে দামে মাল কিনেছি সেই দাম বা তার চেয়ে কম দামে আমাদের এলাকায় এই মাল গুলো পাওয়া যায়। আমি আপনাদের সুবিধার জন্য আমার ঠকার বিষয় ও আপনাদের যেসব বিষয়ে ভেবে যে কোন পুণ্য কিনা উচিত তা নিম্নে তালিকা আকারে তুলে ধরলাম।
১। যার কাছে থেকে মাল কিনবেন তার অনলাইনে মাল বেচার অভিজ্ঞতা আছে কিনা?

২। তাদের পুণ্য দেওয়ার পদ্ধতি কি তা আগে জেনে নিন।

৩। টাকা আগে দিয়ে মাল নিবেন না।

৪। লিষ্ট অনুযায়ী মাল বুঝে না পেলে তারা দায়ভার নিবে কি না?

৫। মাল ভিতরে ভাঙ্গা বা নষ্ট হলে ফেরত নিবে কি না।

৬। আপ্ নে যে মাল নিবেন তা আপনার এলাকায় চলবে কি না?

৭। আপনে যে মাল ঢাকা থেকে কিনছেন তার দাম আপনার এলাকায় কি রকম তা চেক  করে নিন।

৮। বেশি এমোশ্নাল হবেন না। বা তাড়াহুড়া করবেন না। একটু ভাবার চেষ্টা করুন।

৯। প্রথমে অল্প পুঁজিতে পরিক্ষামুলক ব্যবসা  করে দেখুন।

১০। সর্বোপুরি আপনে বিশস্ত ব্যাক্তির সাথে বিশস্তার সহিত ব্যবসা শুরু করুন।

১১। অতিরঞ্জিত ( youtube)  ভিডিওর মন ভুলানো সব কথা বিশ্বাস করবেন না।

পরিশেষে আবারো আপনাদের কাছে অনুরোধ  ( youtube)    ভিডিও দেখে অনলাইনে ব্যবসার নামে কেউ প্রতারিত হবেন না।

নিচের গুরত্ব পুর্ণ লিংকগুলো দেখে আসতে পারেন।


এই লেখার ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

আমাদের ফেসবুক পেজ দেখতে ক্লিক করুন এখানে।

১টি কলার দাম ২০০০ টাকা এবং ১ টি ডিমের দাম ১০০০ টাকা 

স্বাস্থ্য খাতে ব্যাপক দুর্নীতি চরম ও অবনতি 

Solving the sexual … of women and men.

যৌন আকর্ষণ-যৌনমোহ, ব্যাধি ও প্রতিকার।

হাসির জোকস (Bangla hasir jokes)

হাশরের ময়দানে মানুষ ১২টি কাতারে বিভক্ত হবে


Spread the love