সকালে করোনা ‘নেগেটিভ’ বিকেলে ‘পজিটিভ’ উপায় কি?

সকালে করোনা ‘নেগেটিভ’ বিকেলে ‘পজিটিভ’ উপায় কি? বগুড়ার মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে আইসোলেশনে ভর্তি এক রোগীর নমুনা পরীক্ষার রেজাল্ট সকালে করোনা ‘নেগেটিভ’ এলেও সন্ধ্যায় করোনা ‘পজিটিভ’ এসেছে।নমুনা পরীক্ষার দুটি প্রতিবেদন এসেছে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের পরিক্ষাগার থেকে। বগুড়ার ডেপুটি সিভিল সার্জন মোস্তাফিজুর রহমান বুধবার রাত নয়টায় আমাদের এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত ওই ব্যক্তি ঢাকাফেরত। তাঁর বয়স ৫৪ বছর। তিনি ঢাকার একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত। তাঁর বাড়ি শাজাহানপুর উপজেলায়।

ডেপুটি সিভিল সার্জন মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের ল্যাবে বুধবার বগুড়ার ১৬৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ রমধ্যে পাঁচজন করোনা ‘পজিটিভ’ শনাক্ত হয়েছেন। ওই পাঁচজনের মধ্যে মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে আইসোলেশনে থাকা এই ব্যক্তিও রয়েছেন।

মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) শফিক আমিন বলেন, আইসোলেশনে ভর্তি ওই ব্যক্তি ১ মে ঢাকা থেকে বগুড়ায় ফেরেন। ৩ মে সকালে শাজাহানপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে তিনি নমুনা দেন।

অসুস্থ বোধ করলে ওই দিন বিকেলে তিনি মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আইসোলেশনে ভর্তি হন। সেখানে তাঁর চিকিৎসা চলছিল। ৫ মে তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের ল্যাবে পাঠানো হয়।

মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আরএমও শফিক আমিন আরও বলেন, গত বুধবার সকালে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ থেকে ৩ মে সংগ্রহ করা ওই ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদনে করোনা ‘নেগেটিভ ‘ বলে উল্লেখ করা হয়। সন্ধ্যায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ ল্যাব থেকে আসা ৪ মে সংগ্রহ করা নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন তিনি করোনা ‘পজিটিভ’ শনাক্ত হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়।

একই দিন সকালে করোনা ‘নেগেটিভ’, বিকেলে ‘পজিটিভ’ শনাক্ত হওয়া এই রোগী হাসপাতালে অন্য করোনা রোগীর মাধ্যমে সংক্রমিত হলেন কী না জানতে চাইলে আরএমও শফিক আমিন বলেন,করোনা রোগীদের রাখা হয়েছে রেড ওয়ার্ডে। আর ওই ব্যক্তিকে রাখা হয়েছিল গ্রিন ওয়ার্ডে। হাসপাতালে সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা কম।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ রেজাউল আলম বলেন, আক্রান্ত হওয়ার ৪৮ ঘণ্টা অতিবাহিত হওয়ার আগে নমুনা সংগ্রহ করা হলে করোনা ‘পজিটিভ’ শনাক্ত নাও হতে পারেন। ৩ মে প্রথম দফায় দেওয়া নমুনা সম্ভবত ৪৮ ঘণ্টা আগেই সংগ্রহ করা হয়েছিল। এ কারণে নেগেটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

একদিন পর যে নমুনা দিয়েছেন তা আক্রান্ত হওয়ার ৪৮ ঘণ্টা পরে সংগ্রহ করা হয়েছিল। এ কারণে করোনা ‘পজিটিভ’ শনাক্ত হয়েছেন। আবার যথাযথভাবে নমুনা নেওয়া হলেও পরীক্ষার প্রতিবেদন ভুল আসতে পারে। শাজাহানপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা সংগ্রহে ত্রুটির কারণেও এমনটা হতে পারে। ল্যাবে পরীক্ষায় কোনো ভুল নেই। দুটি প্রতিবেদনই সঠিক।

শিক্ষাবিষয়ক বিভিন্ন লেখা দেখতে এখানে ক্লিক করুন।
যেকোন প্রশ্ন করতে ও জানাতে এখানে ক্লিক করুন
আমাদের ফেসবুক পেজ দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

ঘরে বসে বিভিন্ন পড়া ও সিলেবাস শেষ করতে চাইলে দেখুন এই লিংক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *