৬ষ্ঠ শ্রেণীর বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট ৫ম সপ্তাহ ২০২১

৫ম সপ্তাহের ৬ষ্ঠ ষষ্ঠ  শ্রেণীর বাংলা  অ্যাসাইনমেন্ট ৫ম সপ্তাহ ২০২১ |আপনি কি ষষ্ঠ (৬ষ্ঠ) শ্রেণির ৫ম সপ্তাহের বাংলা (Bangla) অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ (পঞ্চম সপ্তাহ) সন্ধান করছেন? আপনি সঠিক জায়গায় চলে আসছেন কারণ আমরা এখানে ষষ্ঠ (৬ষ্ঠ) শ্রেণির ৫ম সপ্তাহের বাংলা (Bangla) এসাইনমেন্ট সমস্ত বিষয় নিয়ে প্রশ্ন ও সমাধান প্রকাশ করেছি। ৬ষ্ঠ শ্রেণীর বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট ৫ম সপ্তাহ ২০২১।

প্রশ্নঃ বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন সহপাঠীর প্রতি তোমার আচরণ কেমন হওয়া উচিত বা অনুচিত তা একটি ছকের মাধ্যমে তুলে ধর।  

শিরোনাম: বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন সহপাঠীর প্রতি আমাদের আচরণ।

যে সকল শিশুর ইন্দ্রিয় ক্ষমতা বুদ্ধি বা শারীরিক ক্ষমতা এতটাই ভিন্ন যে কারণে তাদের জন্য বিশেষ শিক্ষা বা বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণের প্রয়োজন হয়, সেই সকল শিশুকে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশু বলা হয়। বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশু বলতে সেইসব শিশুদের বুঝায় সমবয়স্কদের তুলনায় যাদের বুদ্ধি সংবেদন, শারীরিক বৈশিষ্ট্য, ভাব বিনিময় ক্ষমতা ও সামাজিক ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য মাত্রার কম বা বেশি হয় তাদেরকেই ব্যতিক্রমী শিশু বলে  আখ্যায়িত করা হয়. অর্থাৎ যারা সাধারণের বাইরে তারাই বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশু। বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের শিক্ষাদানের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট কিছু শিক্ষা পদ্ধতি ভালো ফল দেয়। এ ধরনের শিশুদের যদি জটিল বিষয়কে সহজ-সরলভাবে ধাপে ধাপে উপস্থাপন করে শেখানো যায় তবে তারা সহজে বুঝতে পারবে। শ্রেণীকক্ষ ব্যবস্থাপনা পদ্ধতির মাধ্যমে শিশুদের শিক্ষাদান করা যেতে পারে। আমার শ্রেণিতে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশু থাকলে তার প্রতি আমার অনেক দায়-দায়িত্ব থাকবে।।

সেটা হতে পারে চিকিৎসা, মানসিক বা মনস্তাত্ত্বিক। বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুর গড় মান সাধারণ মানুষের থেকে বেশি, আবার কমও হতে পারে। সহজ ব্যাখ্যায়, ইন্দ্রিয় ক্ষমতা, বুদ্ধি বা শারীরিক অক্ষমতার কারণে যেসব শিশুর বিশেষ শিক্ষা, বিশেষ চিকিৎসা বা ব্যবস্থা গ্রহণের প্রয়োজন হয়, সেসব শিশুকে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশু বলা হয়।

আমরা পাঠ-পরিচিতি থেকে জানার চেষ্টা করি যে মিনু  বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন   শিশু কিনা?

পাঠ-পরিচিতি। ৬ষ্ঠ শ্রেণীর বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট ৫ম সপ্তাহ ২০২১।

 বিচিত্র মানুষের সমন্বয়ে গড়ে উঠেছে আমাদের এ সমাজ। কেউ সুস্থ, কেউবা পুরাে সুস্থ নয়। বাক্প্রতিবন্ধী মানুষও আমাদের সমাজে প্রায়ই দেখা যায়। ছোট্ট মেয়ে মিনু বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী। তার মা-বাবা নেই। তাই বলে জীবনকে সে তুচ্ছ মনে করে না। দূর-সম্পৰ্কীয় এক আত্মীয়ের বাসায় তাকে থাকতে হয়। সেখানে গৃহকর্মে তার অখণ্ড মনোযোগ। শুধু তাই নয়, প্রকৃতির সঙ্গেও সে মিতালি পাতিয়েছে। ভোরবেলাকার নতুন সূর্যকে নিজের জ্বালানো চুল্লির সঙ্গে তুলনা করতেই তার ভালো লাগে। হলদে পাখি দেখে তার মনে পুলক জাগে। পাশের বাসায় কোনো এক প্রবাসী পিতার আগমন লক্ষ করে সে মনে করে, একদিন তার বাবাও ফিরে আসবে। পিতার জন্য মনে মনে অপেক্ষা করে কিশোরী হলদে পাখি আসে কিন্তু তার পিতা আসে না— এই কষ্ট তার একান্ত নিজস্ব। তবুও সে স্বপ্ন দেখে। এই স্বপ্নই তাকে সমস্ত প্রতিকূলতা অতিক্রম করতে সাহায্য করে।

বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন সহপাঠীর প্রতি আমার আচরণ যেমন হওয়া উচিত বা অনুচিত তা নিচে একটি ছকের মাধ্যমে তুলে ধরা হলোঃ

উচিত  অনুচিত
|১। বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিক্ষার্থীদের প্রথম সারিতে বসানোর ব্যবস্থা করতে পারি।   তাদেরকে পেছনে রেখে সামনের সারিতে বসা।    
। ২। তাদেরকে কথা বলার বা দেখানোর সুযোগ দেওয়ার ব্যবস্থা করতে পারি।  তাদের সাথে কথা না বলা।
৩। কিছু না বুঝলে অথবা বুঝতে অসুবিধা হলে বুঝিয়ে দিতে পারি।তাদের সাথে দুষ্টমি বা তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করা।
8। সহজ, সরল ও সাবলীল ভাষায় তাদের সাথে কথা বলতে পারি।তাদেরকে কথা বলায় বাধা দেওয়া।  
৫। তাদের সাথে সর্বদা ভালো  আচরণ করতে পারি।তাদের সাথে খারাপ আচরণ করা।
৬। তাদেরকে যে কোন সমস্যায় সর্বোচ্চ সহযোগিতা করতে পারি।তাদেরকে সহযােগীতা না করা।
৭। তাদের কোনো অসুস্থতা দেখা দিলে বিলম্ব না করে শিক্ষকদের জানাতে পারি।তাদের অসুস্থতায় এগিয়ে না আসা।
রুল পেন্সিল দিয়ে ছক করে ১-১১ পর্যন্ত লিখবে।
৮। তাদেরকে সব সময় হাসিখুশি তথা বিনোদনের মধ্যে রাখতে পারি।  তাদেরকে খেলাধুলা বা বিনোদনের সুযোগ না  দেওয়া।
৯। শ্রেণীর অন্যান্য শিক্ষার্থীরাও যেন তাদের প্রতি সহানুভূতিশীল হতে পারে সে ব্যবস্থা করতে পারি।তাদের সাথে দুষ্টমি করতে অন্য শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করা ।
১০। তাদের সাথে ভাই বোনের মতো আচরণ পারি।তাদেরকে কখনােই প্রতিবন্ধী কিংবা অটিস্টিক বলা ।
১১। সবসময় তাদের কৃতকার্যের জন্য প্রশংসা করা ।তাদের কৃতকার্যে হিংসা করা।
  
নিজে থেকে পারলে আরো শর্ত তুলে ধরবেন।

 শিক্ষা প্রতিটি শিশুর জন্মগত মৌলিক অধিকার। সবার জন্য শিক্ষা বাস্তবায়নে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশু একটি ব্যাপক অর্থ নির্দেশক শব্দ। আমরা। সাধারণত অনেক বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধী শব্দটি ব্যবহার করি। প্রতিবন্ধী। শব্দটি নেতিবাচক, যেখানে একজন ব্যক্তিকে ছোট করে দেখা হয়। আর বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শব্দের মাধ্যমে নির্দেশ করা হয় শিশু বা ব্যক্তির এমন কিছু বিশেষ চাহিদা রয়েছে যা পূরণ করলে সে সাধারণ মানুষের মত জীবন যাপন করতে পারবে।

নিচের গুরত্ব পুর্ণ লিংকগুলো দেখে আসতে পারেন। 

৬ষ্ঠ শ্রেণি ৪র্থ সপ্তাহের এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর।

৯ম/নবম শ্রেণীর ৪র্থ সাপ্তাহের বাংলা এসাইনমেন্ট উত্তর

৬ষ্ঠ শ্রেণী চারু ও কারুকলা অ্যাসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১

সোনামণিদের ১০টি গুণাবলী

পরিসংখ্যানের জনগুরত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও উত্তর

খুব গুরত্বপূর্ণ মনকাড়া সর্বদা পালনীয় কতগুলো উপদেশ।

হাশরের ময়দানে মানুষ ১২টি কাতারে বিভক্ত হবে

Best Quran Recitation in the World 2016 Emotional Recitation

Mostafa Dewan

I can work with SEO, (off-page SEO) Link building, Facebook marketer, content writing, content rewrite, word press install, blog comment, backlink creation, article submission, blog post, etc. Any product or business I can reach millions of people through my work skillsI understand the mentality of the customer. I am a very attractive and effective web content writer to promote any business. I work with full responsibility of a large organization able to work with self-direction and motivation.I find peace in the middle of my work. Thank you by Mostafa Dewan bdpnpc 01736265696.

error

দয়া করে শেয়ার করবেন।

RSS
Follow by Email